১৩ই নভেম্বর, ২০১৯ ইং
Breaking::

Daily Archives: October 10, 2016

সৎ সাহস থাকলে প্রমান দিন, কালের কন্ঠকে শিবির

1082_1-copy

দৈনিক কালের কন্ঠে ‘নিহত জঙ্গি রহমান ছিলেন সাতক্ষীরার শিবির নেতা’ শীর্ষক প্রতিবেদনে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন খবর প্রকাশের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

এক যৌথ প্রতিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আতিকুর রহমান ও সেক্রেটারী জেনারেল ইয়াছিন আরাফাত বলেন, আবারো অপসাংবাদিকতার নিকৃষ্ট নজির জাতির সামনে পেশ করেছে কালের কন্ঠ। বিশেষ মহলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে জঙ্গিবাদের মত একটি স্পর্শকাতর ইস্যু নিয়ে তামাশা করছে কালের কণ্ঠ। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে পুলিশের অভিযানে নিহত জঙ্গি আব্দুর রহমান সাতক্ষীরার শিবির নেতা ছিলেন। এমন একটি জঘন্য মিথ্যাচারের পক্ষে এই একটি বানোয়াট শিরোনাম ছাড়া আর কোন তথ্য প্রমাণ দেননি প্রতিবেদক। নূন্যতম তথ্য প্রমাণ ছাড়া জঙ্গিবাদের সাথে একটি নিয়মতান্ত্রিক ছাত্রসংগঠনকে জড়ানো দায়িত্বহীন অপসাংবাদিকতা ছাড়া কিছু নয়। মূলত নিহত আব্দুর রহমান ছাত্রশিবিরের নেতা তো দূরে থাক সমর্থকও নয়। তার সাথে ছাত্রশিবিরের কোন সম্পর্ক নেই। এর আগেও কালের কণ্ঠ একাধিকবার জঙ্গিবাদের সাথে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে অপপ্রচার করেছে। সময়ের ব্যবধানে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে এসব অপপ্রচার মিথ্যা বলে প্রমাণিত হয়েছে এবং কালের কণ্ঠের এই নীতিহীন অবস্থানের প্রতি ধিক্কার জানিয়েছে সচেতন পাঠক সমাজ। এরপরও যেখানে সেখানে ছাত্রশিবিরকে জড়িয়ে অপপ্রচার করেই যাচ্ছে কালের কণ্ঠ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, আমরা কালের কণ্ঠের প্রতি আহবান রেখে বলতে চাই, সৎ সাহস থাকলে নিহত আব্দুর রহমান শিবিরের কোন পর্যায়ের নেতা ছিলেন বা সাতক্ষীরায় কোথায় দায়িত্ব পালন করেছেন তার সঠিক তথ্য দিয়ে প্রমাণ করুন। আর না পারলে আপনাদের উচিৎ সাংবাদিকতার মত পবিত্র পেশার প্রতি সম্মান জানিয়ে প্রতিবেদন প্রত্যাহার করে ক্ষমা চাওয়া। আমরা বলব, এসব মিথ্যা ও বানোয়াট প্রতিবেদন দেশের জনগণ বিশ্বাস করে না। কারণ দীর্ঘ পথ চলায় ছাত্রশিবিরের সাথে জঙ্গিদের কোন সংশ্লিষ্টতা জাতি দেখেনি বরং ছাত্রশিবিরের অবস্থান সবসময় জঙ্গিবাদের বিরোদ্ধে। সুতরাং আমরা আশা করব, কালের কণ্ঠ এই মিথ্যা প্রতিবেদনটি প্রত্যাহার করবে এবং ভবিষ্যতে সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে আরো দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিবে।

নেতৃবৃন্দ এ ধরণের মিথ্যা ও ভিত্তিহীন প্রতিবেদন প্রকাশ থেকে বিরত থাকতে সংশ্লিষ্ট প্রতিবেদক ও গণমাধ্যমের প্রতি আহবান জানান।